স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহেদ মালিক বলেছেন, ইতোমধ্যে ভ্যাকসিন দেয়ার সমস্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন হওয়ায় বাংলাদেশ চলতি মাসের শেষে বা আগামী মাসের শুরুতেই ভ্যাকসিন পাবে। শনিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার শুভ্র সেন্টারে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আরও ঘুরে আসতে পারেনঃ দুর্ঘটনার কবলে প্রশিক্ষণ বিমান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে করোনার সংক্রামণ আগের তুলনায় কমে গেছে। সংক্রমণের হার এখন সাড়ে ৫ শতাংশ, সুস্থতার হার ৯০ শতাংশ এবং মৃত্যুর হারও কমে গেছে। আমাদের দেশে কোনও ‌‘ওয়েভ’ নাই। যেভাবে আমেরিকাতে প্রত্যেকদিন চার হাজার লোক মারা যায়, পুরো বিশ্বে প্রায় ১০ হাজারের অধিক লোক মারা যায়। সেখানে আমাদের দেশে এখন মৃত্যু হার খুবই অল্প।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্যবিধি এবং সামাজিক দূরত্ব মানায় বাংলাদেশ ভালো আছে। অর্থনীতিতেও ভালো আছে। দেশে গড়ে প্রতিদিন ২০-২৫ জন লোক মারা যাচ্ছে। তবে আমরা চাই না, করোনায় আমাদের দেশে একটি লোকও মারা যাক।

এছাড়া বাংলাদেশকে অনেকেই ভ্যাকসিন দিতে চাচ্ছে। চীন, রাশিয়া ও আমেরিকা আমাদের ভ্যাকসিন দিতে চাচ্ছে। ভ্যাকসিনের জন্য আমরা সব দরজা খুলে রেখেছি। ফাইজার কোম্পানি থেকে বিনামূল্যে কিছু ভ্যাকসিন দিতে চাচ্ছে। এই ভ্যাকসিন আমরা গ্রহণ করবো এবং ফ্রন্ট লাইনারদেরকে আগে ভ্যাকসিন দেয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌস, পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, জেলা জজ কোর্টের পিপি এড. আবদুস সালাম, সাটুরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট আবদুল মজিদ ফটো।

আরও বিস্তারিত জানতে এখানে প্রশ্ন করুন

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments